ক্ষমতার দাপটে জমি দখলের অভিযোগ কৃষি মন্ত্রণালয়ের উপসচিবের বিরুদ্ধে

গাজীপুরের সিটি করপোরেশনের ২৫ নং ওয়ার্ডের ভুরুলিয়ায় পৈতৃক সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ সচিবালয়ের কৃষি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জসিম উদ্দিন, তার বাবা  ভাইদের বিরুদ্ধে। উপসচিব পদ মর্যাদার উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা হওয়ায় ক্ষমতার দাপটে নিজের জমির উপর যেতে পারছেন না ভুক্তোভুগি  মরিয়ম ও রেজিনা নামের দুই মহিলা। মরিয়ম ও রেজিনা আপন দুই বোন ও উপসচিব জসিম উদ্দিনের ফুফু। অন্যদিকে জমি দখলের অভিযোগে উপসচিব জসিম উদ্দিন ও তার ভাই এবং বাবার নাম উল্লেখ করে গাজীপুর সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তার আরেক চাচাতো ফুফু আয়মন নেছা (৬২) নামের বৃদ্ধা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,  গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ২৫ নং ওয়ার্ডের ভুরুলিয়ার মৃত শেখ মানিকের তিন পুত্র। শেখ নইম উদ্দিন, শেখ মইন উদ্দিন ও শেখ তাইজুদ্দিন। বেঁচে থাকতে মৃত শেখ মানিক তার তিন ছেলেকে সমান অংশে জমি ভাগ করে দিয়ে যান। তবে পরবর্তীতে শেখ তাইজুদ্দিনের  ছেলে হাফিজ উদ্দিন এবং হাফিজ উদ্দিনের ছেলে উপসচিব জসিম উদ্দিন,  আশরাফ উদ্দিন ও সিহাব উদ্দিন মিলে  শেখ নইমুদ্দিনের দুই মেয়ে মরিয়ম ও রেজিনার পৈতৃক সুত্রে পাওয়া জমি জোর জবরদস্তী করে ভোগ দখলে রেখেছে। যতবারই মরিয়ম ও রেজিনা তাদের জমির বুঝে নিতে যান তখন তাদেরকে হুমকি ধমকি ও প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করা হয় বলে অভিযোগ মরিয়ম ও রেজিনার। অন্যদিকে মইন উদ্দিনের মেয়ে আয়মন নেছার জায়গা দখলের অভিযোগে হাফিজ উদ্দিন এবং হাফিজ উদ্দিনের ছেলে উপসচিব জসিম উদ্দিন,  আশরাফ উদ্দিন ও সিহাব উদ্দিন এর বিরুদ্ধে গাজীপুর সদর থানায় অভিযোগ দিয়েছেন আয়মন নেছা।

এ বিষয়ে মরিয়ম বলেন, আমার বাবা শেখ নইমুদ্দিন আমার নামে ও আমার বোন রেজিনার নামে তিন কাঠা করে জমি দিয়ে গেছেন। সেই জমি দীর্ঘ দিন ধরে দখলে রেখেছেন আমার চাচাতো ভাই হাফিজ উদ্দিন ও তার সন্তানেরা। আমি সেই জমি বুঝে নিতে আসলে হাফিজ উদ্দিন ও তার ছেলেরা দা (লোহার তৈরি যন্ত্রাংশ) দিয়ে আমাকে দৌড়ানি দিয়েছে। কোন মতে ভয়ে আমি সেখান থেকে চলে যায়। আমি আমার কাগজ পত্র সিটি করপোরেশনকে ও প্রশাসন কে দেখিয়েছি তারা আমার জমি মেপেছে। আমি আমার জমি বুঝে চাই। কারও কাছে গেলেই আমার ভাইয়ের ছেলে  জসিম উদ্দিন সচিব হওয়ায় বিভিন্ন ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি ধমকি প্রদান করে।

একই কথা বলে রেজিনা বেগম বলেন, ‘পৈতৃক সম্পত্তি সুত্রে পাওয়া তিন কাঠা জমিতে বিভিন্ন ফলের গাছ লাগানো ছিল আমি সেই ফল এসে বিক্রি করতাম বেশ কয়েক বছর আগে আমার চাচাতো ভাই হাফিজ উদ্দিন আমাকে বলে এই ফল তুই বিক্রি করিস না আমি স্বপ্নে দেখেছি এই ফল মাদ্রাসা মসজিদে বাবা দিতে বলেছে। সেই কথা বলে আমাকে আর ফল বিক্রি করতে না দিয়ে সে ফল বিক্রি করে। পরবর্তী বছর দুয়েক পরে জমি তে আসলেই সে আর আমাকে ঢুকতে না দিয়ে তার জমি বলে দখল করে রেখেছে।  হাফিজের ছেলে সচিবের হওয়ায় তাদের প্রভাবে আমরা কোন সহযোগিতা পাচ্ছি না।’ আমি আমার বাবার দিয়ে যাওয়া জমি ফেরত চাই।

অন্যদিকে হাফিজ উদ্দেনের আরেক চাচাতো বোন  শেখ মইন উদ্দিনের মেয়ে আয়মন নেছা (৬২) ভুরুলিয়া মৌজায় বাবার পৈতৃক সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টার অভিযোগে হাফিজ উদ্দিন ও তার ছেলে উপসচিব জসিম উদ্দিন ও জসিম উদ্দিনের ভাইসহ বেশ কয়েকজনের নামে গাজীপুর সদর থানায় গত ৪ সেপ্টেম্বর  ২১ একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

লিখিত অভিযোগে তিনি চাচাতো ভাই হাফিজ উদ্দিন ও তার ছেলে জসিম উদ্দিনকে প্রধান করে বেশে কয়েকজনের নাম উল্লেখ করেছেন।

লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, গত ৪ সেপ্টেম্বর  ২১ তারিখে আয়মন নেছার জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করে সেখান থেকে গর্ত করে প্রায় লক্ষাধিক টাকার মাটি কেটে অন্যত্র সরিয়ে ফেলে। আয়মন নেছা ও তার ছেলে বাধা প্রধান করলে তাকে ও তার ছেলেকে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করেন ।  পরবর্তীতে ভীত সন্ত্রস্থ হয়ে আয়মন নেছা উপসচিব জসিম উদ্দিন ও তার বাবা এবং ভাই ও উপস্থিত হুমকিতাদের নাম উল্লেখ করে গাজীপুর সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

তবে এ বিষয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জসিম উদ্দিনকে জমি জবর দখলের অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমার কোন বক্তব্য নাই এটা তো কেনা সম্পত্তি নয় এটা পৈতৃক সুত্রে পাওয়া জমি এখানে যার কাগজ পত্র থাকবে সে এই জমি পাবে।

Check Also

পাংশায় হত্যা মামলার আসামীও চেয়ারম্যান প্রার্থী

আগামী ডিসেম্বর ২০২১ এর মধ্যে সকল প্রকার নির্বাচন সম্পন্ন করার ঘোষণা দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *